Tuesday, 31 January 2012

সাত বাংলাদেশিকে নিয়ে গেছে বিএসএফ


নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট | তারিখ: ৩১-০১-২০১২


সিলেটের জৈন্তাপুর সীমান্তে সাত বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। এঁরা সবাই শ্রীপুর পাথর কোয়ারিতে কাজ করেন।

গতকাল সোমবার দুপুরে পাথর কোয়ারির বাংলাদেশ অংশে ব্যক্তিমালিকানাধীন একটি গর্তের আশপাশ ঘেরাও করে বিএসএফ ওই শ্রমিকদের নিয়ে যায়। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) শ্রীপুর ক্যাম্পের সদস্যরা এগিয়ে গেলে বিএসএফ বাংলাদেশ অভ্যন্তরের ২০০ গজ এলাকায় অবস্থান করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শ্রমিকদের নিয়ে গেছে বলে জানায়। তবে আজ মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ওই সাত বাংলাদেশি শ্রমিকদের ফেরত দেয়নি বিএসএফ।

বিএসএফের ধরে নিয়ে যাওয়া বাংলাদেশি পাথর শ্রমিকেরা হলেন—জৈন্তাপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের আশামপাড়া গ্রামের শাহেদ আহমদ (২২), একই গ্রামের আবদুস সামাদ (২০), নূর ইসলাম (২০), আবদুল করিম (১৮), মোরশেদ আলম (২৫) ও সেলিম আহমদ (২০)।

যোগাযোগ করলে বিজিবি শ্রীপুর ক্যাম্প কমান্ডার আবু বক্কর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে প্রথম আলো অনলাইনকে বলেন, ‘কী কারণে এঁদের ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে—জানতে চাইলেও বিএসএফ আমাদের জানাননি। সোমবার রাতে বিএসএফ সূত্রে জানা গেছে সাত বাংলাদেশি পাথর শ্রমিককে ভারতের মেঘালয়ের ডাউকি থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। বিষয়টি বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।’

এক শ্রমিকের বাবা আশামপাড়ার আবদুল জলিল জানান, বাংলাদেশ সীমান্তের ভেতরে আবদুল মতিন নামের একজন পাথর কোয়ারি মালিকের গর্ত ছিল। সেখানে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে কাজ করছিল তাঁর ছেলেসহ সাতজন। কী কারণে তাদের ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে—এ বিষয়টি তাঁরা নিশ্চিত হতে পারেননি।

জৈন্তাপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘কোনো কারণ ছাড়াই এঁদের ধরে নিয়ে যাওয়ায় পরিবারগুলোতে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।’

No comments:

Post a Comment

Post a Comment