Monday, 5 March 2012

বিএসফের পিটুনিতে আহত জলিল ভারতের থানায়


Mon, Mar 5th, 2012 12:47 pm BdST

দিনাজপুর, মার্চ ০৫ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- দিনাজপুরের বিরামপুর সীমান্তে তিনজনকে পিটিয়ে আহত করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী- বিএসএফ। এদের মধ্যে একজনকে ভারতীয় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ-বিজিবি।

কয়েকজন বাংলাদেশি সোমবার ভোরে বিরামপুরের ভাইগড় সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করলে বিএসএফ সদস্যরা তাদের রড ও লাঠি দিয়ে পেটায়। এতে আব্দুল জলিল (৪০) নামে একজন নিহত ও দুইজন আহত হন বলে সকালে সংবাদ মাধ্যমকে জানান বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) দিনাজপুর অঞ্চলের কমান্ডার কর্নেল এমদাদুল হক।

তবে দুপুরে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠকের পর বিজিবি-৪০ ফুলবাড়ী ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তায়েবুল হক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বিএসএফ সদস্যরা জানিয়েছে জলিল মারা যাননি। অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে তাকে ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুমারগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।”

ভারতের আগ্রা বিএসএফ ক্যাম্পে দুপুর ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত এ পতাকা বৈঠক হয়।

কর্নেল এমদাদুল হক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ভোরে সীমান্ত- পার হওয়ার পরপরই ভারতের গোবিন্দপুর বিএসএফ-২৮ ক্যাম্পের সদস্যরা কয়েকজন বাংলাদেশিকে আটক করে। এরপর রড ও লাঠি দিয়ে তাদের বেদম পেটানো হয়।

বিজিবি কর্মকর্তারা জানান, নির্যাতনে আহত মো. গোলাপ (৪২) নামের একজনকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি বিরামপুরের দক্ষিণ দাউদপুর গ্রামের ওয়াসিম উদ্দিনের ছেলে। আর ভারতে আটক জলিলের বাড়ি বিরামপুর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামে। তার বাবার নাম মফিজ উদ্দিন।

একই ঘটনায় নির্যাতিত আজিম উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে বিজিবি তার বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেনি।

বিজিবি-৪০ ফুলবাড়ী ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তায়েবুল হক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গোলাপের করাত দিয়ে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, তিনজন বাংলাদেশি বিএসএফের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তবে আজিম উদ্দিনই তৃতীয় ব্যক্তি কি-না তা নিশ্চিত করা যায়নি।

গত বছরের ৯ ডিসেম্বর রাজশাহীর পবা উপজেলার খানপুর সীমান্তেবিএসএফ জওয়ানদের নির্যাতনের শিকার হন চাঁপাইনবাবগঞ্জের যুবক হাবিবুর রহমান। তাকে নির্যাতনের ভিডিওচিত্রটি গত ১৯ জানুয়ারি ভারতীয় টেলিভিশনে প্রচারের পর আট জওয়ানকে বরখাস্ত করে বিএসএফ।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/সিএস/আরএ/১৫৫০ ঘ. 
http://www.bdnews24.com/bangla/details.php?cid=2&id=187729&hb=1

No comments:

Post a Comment

Post a Comment